• সাভার

  •  মঙ্গলবার, জুন ১৮, ২০২৪

নগর জুড়ে

ছেলেকে আপনাদের হাতে সঁপে দিলাম : রাইবেরিলিতে সোনিয়া গান্ধী

নিজস্ব প্রতিবেদক

 প্রকাশিত: ০৯:১৬, ১৮ মে ২০২৪

ছেলেকে আপনাদের হাতে সঁপে দিলাম : রাইবেরিলিতে সোনিয়া গান্ধী

ছেলেকে আপনাদের হাতে সঁপে দিলাম : রাইবেরিলিতে সোনিয়া গান্ধী

ছেলেকে সমর্পণ করে যাচ্ছেন। ছেলে তাদের হতাশ করবেন না। ভারতের উত্তর প্রদেশের রাইবেরিলিতে দাঁড়িয়ে এমনটাই জানালেন কংগ্রেস নেত্রী সোনিয়া গান্ধী। এই নির্বাচনী কেন্দ্রের চারবারের সংসদ সদস্য সোনিয়া চলতি বছরের শুরুতে আসনটি ছেড়ে রাজ্যসভায় গিয়েছেন।

এবার এই কেন্দ্রে প্রার্থী রাহুল। তার হয়ে প্রচারে গিয়েছিলেন মা সোনিয়া। নিজের আগের কেন্দ্রে দাঁড়িয়েই কংগ্রেসের সাবেক সভানেত্রী জানালেন, তার ছেলে রাইবেরিলিবাসীকে ‘নিরাশ’ করবেন না। ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা শুক্রবার এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানিয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গান্ধী পরিবারের ‘দুর্গ’ বলে পরিচিত এই রাইবেরিলি। সেখানে শুক্রবার প্রচারে গিয়ে সোনিয়া বলেন, ‘আপনাদের কাছে নিজের ছেলেকে সঁপে দিয়ে গেলাম। আপনারা যেমন আমাকে নিজের ভেবেছেন, তেমনই ওকেও ভাববেন। এই রাহুল আপনাদের নিরাশ করবে না।

২০০৪ সালে প্রথমবার রাইবেরিলি থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন সোনিয়া। তিনি জানিয়েছেন, এই রাইবেরিলি থেকে অনেক শিক্ষা পেয়েছেন তিনি। সেই শিক্ষাই দিয়েছেন ছেলেকে। তিনি বলেন, ‘ইন্দিরা গান্ধী ও রাইবেরিলি আমায় যে শিক্ষা দিয়েছে, আমি রাহুল ও প্রিয়াঙ্কাকে সেই শিক্ষাই দিয়েছি। সবাইকে সম্মান, দুর্বলদের রক্ষা, মানুষের অধিকারের জন্য অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়াই। ভয় পাবেন না, আপনাদের ঐতিহ্য ও লড়াইয়ের শিকড় অনেক গভীরে।’ কংগ্রেস নেত্রী এ-ও জানিয়েছেন, বহু দিন পর রাইবেরিলিতে ফিরে তিনি খুব খুশি। সেখানকার মানুষজনের কাছে তিনি কৃতজ্ঞ। শুক্রবার ৭৭ বছর বয়সী সোনিয়ার পাশে ছিলেন প্রার্থী রাহুল এবং মেয়ে প্রিয়াঙ্কা। হিন্দিতে রাহুল রাইবেরিলিবাসীর উদ্দেশে বলেন, ‘রাইবেরিলি আমার পরিবার।

অমেঠীও আমার বাড়ি। এই জায়গাগুলোর সঙ্গে অনেক স্মৃতি জড়িয়ে রয়েছে। একই সঙ্গে ১০০ বছর ধরে এখানকার সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে আমার পরিবারের শিকড়। মা গঙ্গার মতোই পবিত্র এই সম্পর্ক, যা অওয়ধ এবং রাইবেরিলির কৃষক আন্দোলনের সঙ্গে শুরু হয়েছে।’ এই রাইবেরিলিতে প্রার্থী হয়েছেন ইন্দিরা এবং রাহুলের দাদা ফিরোজ গান্ধী। ২০ মে পঞ্চম দফায় ভোট রয়েছে এই রাইবেরিলি এবং অমেঠীতে। অমেঠীতে গত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির স্মৃতি ইরানির কাছে হেরে যান রাহুল। তবে জয়ী হয়েছিলেন কেরালার ওয়েনাড় থেকে। এবার ওয়েনাড়ের পাশাপাশি মায়ের ছেড়ে যাওয়া রাইবেরিলিতে প্রার্থী তিনি।

মন্তব্য করুন: