• সাভার

  •  শনিবার, মে ১৮, ২০২৪

নগর জুড়ে

ইসরায়েল-গাজা যুদ্ধ: মালয়েশিয়ায় কেএফসির শতাধিক আউটলেট বন্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক

 প্রকাশিত: ১৫:৩৭, ১ মে ২০২৪

ইসরায়েল-গাজা যুদ্ধ: মালয়েশিয়ায় কেএফসির শতাধিক আউটলেট বন্ধ

ইসরায়েল-গাজা যুদ্ধ: মালয়েশিয়ায় কেএফসির শতাধিক আউটলেট বন্ধ

মালয়েশিয়ায় সাময়িকভাবে ১০০টিরও বেশি আউটলেট বন্ধ করে দিয়েছে মার্কিন ফাস্ট-ফুড চেইন কেএফসি। গাজায় চলমান যুদ্ধের কারণে ফিলিস্তিনের পক্ষে বয়কটের জেরে বিশ্বজুড়ে মার্কিন-সংশ্লিষ্ট ব্যবসাগুলো এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছে। কম্পানির পক্ষ থেকে জানানো হয়, আর্থিক চ্যালেঞ্জের কারণে এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। মালয়েশিয়ায় কেএফসি মালিক ও পরিচালক প্রতিষ্ঠান হলো কিউএসআর ব্র্যান্ডস।

এই প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, ২৭ এপ্রিল সন্ধ্যা পর্যন্ত মালয়েশিয়ায় কেএফসির ১০৮টি শাখা সাময়িকভাবে কার্যক্রম স্থগিত করেছে এবং দেশটির কেলানতানে প্রায় ৮০ শতাংশ শাখা অস্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। যার মধ্যে জোহরে ১৫টি শাখা (সাময়িকভাবে বন্ধ), কেদাহ (১১), তেরেঙ্গানু (১০), পাহাং (১০), পেরাক (৯), নেগেরি সেম্বিলান (৬), পেরলিস (২), মেলাকা (২), পেনাং (৫), কুয়ালালামপুর (৩), সাবাহ (১) এবং সারাওয়াকে ২টি শাখার কার্যক্রম বন্ধ করা হয়েছে।

রয়টার্সের প্রতিবেদন অনুযায়ী, মালয়েশিয়ায় সাময়িকভাবে ১০০টির বেশি আউটলেট বন্ধ করেছে কেএফসি। এসব আউললেটের বেশিরভাগ উত্তর-পূর্ব কেলান্টান রাজ্যে অবস্থিত। গাজা যুদ্ধে ইসরায়েলের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের যে একতরফা সমর্থন তার প্রতিবাদে দেশটিতে কয়েক মাস ধরে ইসরায়েলি ও মার্কিন পণ্য বয়কটের আন্দোলন চলছে। জনগণের এই বয়কট আন্দোলনের জেরে এই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে কেএফসি। ২০২৩ সালের ৭ই অক্টোবর ইসরাইল, ফিলিস্তিনের ওপর আক্রমণ চালাতে শুরু করে। তখন থেকেই তাদের আর্থিকভাবে সাহায্য করার অভিযোগ ওঠে কেএফসির বিরুদ্ধে।

চলমান এই যুদ্ধে জাতিসংঘের মানবিক সমন্বয় বিষয়ক অফিস এবং এনবিসির তথ্য অনুসারে, গত ২৪শে এপ্রিল ২০২৪ পর্যন্ত, ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধে ৩৫ হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। এর মধ্যে ৩৪ হাজার ২৬২ জন ফিলিস্তিনি এবং ১৪১০ জন ইসরায়েলি ছাড়াও ৯৭ জন সাংবাদিকের মধ্যে ৯২ জন ফিলিস্তিনি সাংবাদিক, ২ জন ইসরায়েলি সাংবাদিক এবং ৩ জন লেবানিজ সাংবাদিক রয়েছেন। এ ছাড়া জাতিসংঘের ত্রাণ ও কর্ম সংস্থার ২২৪ জন কর্মীসহ ১৭৯ জনেরও বেশি কর্মচারী নিহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। মালয়েশিয়া একটি সংখ্যাগরিষ্ঠ-মুসলিম দেশ। ফিলিস্তিনিদের প্রতি তাদের পূর্ণ সমর্থন রয়েছে।

অন্যান্য মুসলিম দেশগুলোর মতোই মালয়েশিয়াতেও বিভিন্ন পশ্চিমা ফাস্ট-ফুডের ব্র্যান্ড বয়কটের মুখে পড়েছে। মালয়েশিয়াজুড়ে কেএফসির ছয় শতাধিক আউটলেট রয়েছে। তবে সম্প্রতি এসব আউটলেটে মানুষের পদচারণা একেবারে তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে। এর আগে চলতি মাসের শুরুর দিকে ইসরায়েলের প্রতি মার্কিন সমর্থনের প্রতিবাদে আলজেরিয়ায় প্রথম শাখা খোলার মাত্র দুদিনের মাথায় আউটলেট বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয় কেএফসি।

মন্তব্য করুন: