• সাভার

  •  শনিবার, মে ১৮, ২০২৪

নগর জুড়ে

ঢাবির ভর্তি পরীক্ষায় দ্বিতীয় হয়েছেন মানিকগঞ্জের নিশান

নিজস্ব প্রতিবেদক

 প্রকাশিত: ০৯:৫০, ৬ জুন ২০২৩

ঢাবির ভর্তি পরীক্ষায় দ্বিতীয় হয়েছেন মানিকগঞ্জের নিশান

ঢাবির ভর্তি পরীক্ষায় দ্বিতীয় হয়েছেন মানিকগঞ্জের নিশান

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২২-২৩ সেশনে "ক" ইউনিটের মানবিক বিভাগের ভর্তি পরীক্ষায় মেধা তালিকায় দ্বিতীয় হয়েছেন মানিকগঞ্জের মেয়ে শাহরিন শাহরিয়ার নিশান। তার প্রাপ্ত নম্বর হলো ৯৬.৭৫। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির রেজাল্ট প্রকাশ হওয়ার কিছুক্ষণ পরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিশানকে অভিনন্দন জানিয়ে পোস্ট করেছেন প্যারাগন কোচিং মানিকগঞ্জ শাখার পরিচালক আবু ফাহাদ।

মুহূর্তেই নেটিজেনরা ওই পোস্টে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন বার্তা জানান নিশানকে। তাকে অনেকেই মানিকগঞ্জের মানিক বলেও অভিহিত করছেন। সোমবার (৫ জুন) বিকেলে ৫টার দিকে আবু ফাহাদ বিষয়টি ঢাকা পোস্টকে নিশ্চিত করেছেন।

প্যারাগন কোচিং মানিকগঞ্জ শাখার পরিচালক আবু ফাহাদ বলেন, নিশান অত্যন্ত মেধাবী একজন ছাত্রী। সে মানিকগঞ্জ এস কে সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসিতে (মাধ্যমিক) জিপিএ-৫ এবং মানিকগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজ থেকেও এইচএসসি (উচ্চ মাধ্যমিক) মানবিক বিভাগ থেকে জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে। তাকে (নিশান) নিয়ে আমরা আশাবাদী ছিলাম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা পাস করবে। তবে মেধা তালিকায় দ্বিতীয় হওয়ায় প্যারাগন কোচিং এর সবাই খুবই আনন্দিত ও খুশি। নিশানের শিক্ষা জীবনের উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করছি। সে (নিশান) আমাদের মানিকগঞ্জের গর্ব।

এ বিষয়ে জানতে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে নিশানে মা আফরোজা বেগম বলেন, মহান আল্লাহর কাছে কোটি কোটি শুকরিয়া। আল্লাহ সহায় ছিল বলেই এতো বড় প্রাপ্তি সম্ভব হয়েছে। আমার মেয়ে অনেক চেষ্টা করেছে, পরিশ্রম করেছে। ওর (মেয়ে) পরিশ্রমের ফল পেয়েছে। আমার মেয়ে নিশান ঢাবির ক ইউনিটে (মানবিক বিভাগ) ভর্তি পরীক্ষায় দ্বিতীয় হয়েছে। এই অনুভূতি বলে বোঝানো যাবে না। আমরা সবাই অনেক খুশি। নিশান (মেয়ে) ছোট বেলা থেকেই মেধাবী। ও (মেয়ে) এসএসসি ও এইচএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়েছে।

আমার মেয়েরও ইচ্ছা ছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়াশোনা করবে। আল্লাহ ওর (মেয়ে) মনের ইচ্ছা পূরণ করেছেন। নিশান অনেক মনোযোগ দিয়ে পড়াশোনা করেছে বলেই ঢাবিতে চান্স পেয়েছে। তিনি আরও বলেন, আমার মেয়ে ঢাবি থেকে অনার্স শেষ করে উচ্চ শিক্ষার জন্য স্কলারশিপ নিয়ে দেশের বাইরে যেতে চায় এবং জিওগ্রাফি নিয়ে পড়াশোনা করার অনেক ইচ্ছে তার। আমি পেশায় একজন স্কুলশিক্ষিকা। সেই দিক থেকে আজকে নিজেকে সফল মা হিসেবে মনে হচ্ছে। তবে রেজাল্ট পাওয়ার পর থেকে নিশান ব্যস্ত থাকায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।
 
নিশানের মা আফরোজা বেগম মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার ২৫ নবগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা এবং তার বাবা রেজা শাহরিয়ার ইমরোজ আহমেদ মানিকগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের আইনজীবী পেশায় আছেন। মানিকগঞ্জ জেলা শহরেই তাদের বাড়ি।

মন্তব্য করুন: